রাত ১২:৩৯ | সোমবার | ২১শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং | ৯ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

নতুন পরিকল্পনা নিয়ে আসছে বাংলা টকিজ

: বাংলা ডাবিং ইউটিউব চ্যানেলগুলোর মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলটির নাম বাংলা টকিজ। বর্তমানে চ্যানেলটির সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি। হাতে চলে এসেছে সিলভার প্লে বাটন। মূলত ডাবিংধর্মী ভিডিও তৈরি করে থাকেন তারা।

বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দারুণ জনপ্রিয় এই চ্যানেলের পেছনে আসলে কারা।  চ্যানেলের ভিডিও তৈরি করেন দুই তরুণ, সাকিব রিফাত এবং তার কাজিন সাঈদ সাদমান রহমান। ডাবিং এবং এডিটিংই মূল কাজ। সাকিব রিফাত নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে কম্পিউটার সায়েন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়ছেন এবং ড. মাহবুবুর রহমান মোল্লা কলেজে ইন্টারমিডিয়েট সেকেন্ড ইয়ারে পড়ছেন সাঈদ সাদমান রহমান। পড়াশোনার গন্ডির এখনো শেষ না হলেও  এরইমাঝে মন জয় করে নিয়েছেন লাখো মানুষের।

সিলভার প্লে বাটন হাতে আসতে কিছুটা কালক্ষেপণ হলেও শেষমেষ হাতে পেয়ে স্বস্তিতেই আছেন তারা।  ডাবিং এর আইডিয়াটা কোথা থেকে এলো এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব রিফাত বলেন তারা চ্যানেল খুলেছিলেন বিভিন্ন মুভির রিভিউ দেবেন বলে। তবে ইন্ডিয়ান একটি চ্যানেলের  ডাবিং ভিডিও দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে ঝোঁকের বশেই অনেকটা ডাবিং এ আসা। তবে তাদের প্রথম ডাবিং ভিডিওতে ভালো সাড়া পাবার ফলে তারা আরো উৎসাহ পান এবং পরবর্তীতে দর্শকদের আরো অনেক মজার মজার ডাবিং ভিডিও উপহার দেন। সেখান থেকেই ইউটিউবে তাদের সফলতার যাত্রা শুরু।

সাকিব রিফাতের সাথে কথাবার্তায় আরো অনেক চমকপ্রদ তথ্য উঠে আসে। উনি জানান প্রথমে বাংলা টকিসের কোন ফেসবুক পেজও ছিল না। তখন তাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে ফেসবুকের একটি পেজ খুব ট্রেন্ডিং একটি টপিকের ভিডিও নিয়ে নিজেদের পেজে দেয় এবং ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিওটি। ভিডিওতে বাংলা টকিসের লোগো ছিলো যার ফলে সেই থেকে ফেসবুকেও মানুষজন বাংলা টকিসকে চিনতে শুরু করে।

সাকিব রিফাত আরো বলেন, ডাবিং যে এক ধরণের ফানি ভিডিও ক্যাটাগরি হতে পারে এটা তারা করে দেখিয়েছেন। এখন অনেকেই হয়তো তাদের আইডিয়া নিয়ে ভাবছে কিংবা কাজ করছে তবে তারা তাদের ফ্যানদের কাছে বেস্ট ছিল, আছে এবং সামনেও থাকবে। তারা আজ এতোদূর আসতে পেরেছেন শুধুই তাদের ফ্যানদের কারণে এই বলে ফ্যানদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

প্রথমে শুধু ফানি ডাবিং এর কাজ করলেও এখন তারা চেষ্টা করেন প্রত্যেকটা ভিডিওর পরে একটি ম্যাসেজ দিয়ে দিতে যাতে করে দর্শকরা শুধুই না হেসে একটি ভালো ম্যাসেজও পায়। এছাড়াও তাদের ভ্লগ চ্যানেলে কিছু সামাজিক সচেতনতামূলক ও মজার কনটেন্ট নিয়ে আসবেন যেটাতে বাংলা টকিসকে নতুন রূপে দেখতে পারবে সবাই। পাশাপাশি অন্যান্য ইউটিউবারদের প্রমোট এবং ফ্যানদের নিয়ে স্পেশাল কিছু করারও পরিকল্পনা আছে বলেও জানান তিনি।

print

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» খাঁন মিজানুর রহমানকে গণ সংবর্ধনা

» ভাটিয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি হলেন মাহাবুব রহমান

» বহিস্কৃত হলেন আলফাডাঙ্গা উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি

» গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউনিয়নে শীত বস্ত্র বিতরন

» সহকারী গ্রন্থাগারিক কমিটির “কাশিয়ানী শাখা” কমিটি গঠন

» ” ওরা ভীড় করে “

» তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম ও তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদকে বনপা’র অভিনন্দন

» “ছাঁয়া মানবী”

» আলফাডাঙ্গা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী চার বন্ধুর প্রতিযোগীতা

» আলফাডাঙ্গার গোপালপুরে নৌকার জয়

» আলফাডাঙ্গা ইউনিয়নে নির্বাচনী পোষ্টার ছিড়ে ফেলায় এলাকাবাসীর ক্ষোভ প্রকাশ

» বর্তমান কমিশন অনেক কঠোর: ইসি সচিব

» উন্নয়নের জন্য সকলকে নৌকার প্রার্থীর জন্য মাঠে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে: দোলন

» নতুন পরিকল্পনা নিয়ে আসছে বাংলা টকিজ

» ভাল্বের দাম সর্বোচ্চ ২৬ হাজার ও পেসমেকার ৪ লাখ

সদস্য মণ্ডলী : –

উপদেষ্টা : ডা রফিকুল ইসলাম বিজলী
আইন উপদেষ্টা : এ্যড জামাল হোসেন মুন্না
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুজাহিদুল ইসলাম নাইম
সম্পাদক ও প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন
মফস্বল সম্পাদক : সপ্ন মাহমুদ

যোগাযোগ : –

সম্পাদকীয় কার্যালয় : ২৩/৩, তোপখানা রোড,
৪র্থ তালা (পাক্ষিক অনিয়ম এর পাশে ঢাকা - ১০০০
কর্পোরেট অফিস : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
09602111463,09602333111,01611354077
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।

রাত ১২:৩৯, ,

নতুন পরিকল্পনা নিয়ে আসছে বাংলা টকিজ

: বাংলা ডাবিং ইউটিউব চ্যানেলগুলোর মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলটির নাম বাংলা টকিজ। বর্তমানে চ্যানেলটির সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি। হাতে চলে এসেছে সিলভার প্লে বাটন। মূলত ডাবিংধর্মী ভিডিও তৈরি করে থাকেন তারা।

বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দারুণ জনপ্রিয় এই চ্যানেলের পেছনে আসলে কারা।  চ্যানেলের ভিডিও তৈরি করেন দুই তরুণ, সাকিব রিফাত এবং তার কাজিন সাঈদ সাদমান রহমান। ডাবিং এবং এডিটিংই মূল কাজ। সাকিব রিফাত নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে কম্পিউটার সায়েন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়ছেন এবং ড. মাহবুবুর রহমান মোল্লা কলেজে ইন্টারমিডিয়েট সেকেন্ড ইয়ারে পড়ছেন সাঈদ সাদমান রহমান। পড়াশোনার গন্ডির এখনো শেষ না হলেও  এরইমাঝে মন জয় করে নিয়েছেন লাখো মানুষের।

সিলভার প্লে বাটন হাতে আসতে কিছুটা কালক্ষেপণ হলেও শেষমেষ হাতে পেয়ে স্বস্তিতেই আছেন তারা।  ডাবিং এর আইডিয়াটা কোথা থেকে এলো এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব রিফাত বলেন তারা চ্যানেল খুলেছিলেন বিভিন্ন মুভির রিভিউ দেবেন বলে। তবে ইন্ডিয়ান একটি চ্যানেলের  ডাবিং ভিডিও দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে ঝোঁকের বশেই অনেকটা ডাবিং এ আসা। তবে তাদের প্রথম ডাবিং ভিডিওতে ভালো সাড়া পাবার ফলে তারা আরো উৎসাহ পান এবং পরবর্তীতে দর্শকদের আরো অনেক মজার মজার ডাবিং ভিডিও উপহার দেন। সেখান থেকেই ইউটিউবে তাদের সফলতার যাত্রা শুরু।

সাকিব রিফাতের সাথে কথাবার্তায় আরো অনেক চমকপ্রদ তথ্য উঠে আসে। উনি জানান প্রথমে বাংলা টকিসের কোন ফেসবুক পেজও ছিল না। তখন তাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে ফেসবুকের একটি পেজ খুব ট্রেন্ডিং একটি টপিকের ভিডিও নিয়ে নিজেদের পেজে দেয় এবং ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিওটি। ভিডিওতে বাংলা টকিসের লোগো ছিলো যার ফলে সেই থেকে ফেসবুকেও মানুষজন বাংলা টকিসকে চিনতে শুরু করে।

সাকিব রিফাত আরো বলেন, ডাবিং যে এক ধরণের ফানি ভিডিও ক্যাটাগরি হতে পারে এটা তারা করে দেখিয়েছেন। এখন অনেকেই হয়তো তাদের আইডিয়া নিয়ে ভাবছে কিংবা কাজ করছে তবে তারা তাদের ফ্যানদের কাছে বেস্ট ছিল, আছে এবং সামনেও থাকবে। তারা আজ এতোদূর আসতে পেরেছেন শুধুই তাদের ফ্যানদের কারণে এই বলে ফ্যানদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

প্রথমে শুধু ফানি ডাবিং এর কাজ করলেও এখন তারা চেষ্টা করেন প্রত্যেকটা ভিডিওর পরে একটি ম্যাসেজ দিয়ে দিতে যাতে করে দর্শকরা শুধুই না হেসে একটি ভালো ম্যাসেজও পায়। এছাড়াও তাদের ভ্লগ চ্যানেলে কিছু সামাজিক সচেতনতামূলক ও মজার কনটেন্ট নিয়ে আসবেন যেটাতে বাংলা টকিসকে নতুন রূপে দেখতে পারবে সবাই। পাশাপাশি অন্যান্য ইউটিউবারদের প্রমোট এবং ফ্যানদের নিয়ে স্পেশাল কিছু করারও পরিকল্পনা আছে বলেও জানান তিনি।

print

Comments

comments

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সদস্য মণ্ডলী : –

উপদেষ্টা : ডা রফিকুল ইসলাম বিজলী
আইন উপদেষ্টা : এ্যড জামাল হোসেন মুন্না
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুজাহিদুল ইসলাম নাইম
সম্পাদক ও প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন
মফস্বল সম্পাদক : সপ্ন মাহমুদ

যোগাযোগ : –

সম্পাদকীয় কার্যালয় : ২৩/৩, তোপখানা রোড,
৪র্থ তালা (পাক্ষিক অনিয়ম এর পাশে ঢাকা - ১০০০
কর্পোরেট অফিস : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
09602111463,09602333111,01611354077
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।