রাত ৯:৪১ | মঙ্গলবার | ১৭ই জুলাই, ২০১৮ ইং | ২রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

“অভিমান”

“অভিমান”
————–
—মনিরুজ্জামান নাগর
“মধুমতি পাড়ের লেখিয়ে”
———————————————

-কি হলো? দরজাটা খোলো !
~নাহ খুলবো না।
-আরে প্রমিজ করলাম তো আর কোনদিন দেরি করে ফিরবো না।
~তোমার ওসব মনভোলানো কথায় আজ আমি পটছি না।
-আচ্ছা এইযে কানে ধরলাম। এবার তো খোলো।
~ভণ্ডামো রাখো। তুমি দরজার ওপাশে দাড়িয়ে সত্যিসত্যিই কানে ধরেছো কিনা সেটা আমি এপাশ থেকে কীভাবে বুঝবো?
-বিলিভ মি…সত্যিসত্যিই ধরেছি।
~আই ডোন্ট বিলিভ।
-আচ্ছা বাবা…আমি মোবাইলে ভিডিও করে দরজার নিচ দিয়ে পাঠাচ্ছি তুমি নিজেই দেখে নাও।
~ওকে…তাহলে শোনো, গুনেগুনে ঠিক দশবার ওঠবস করবে। আর কাউন্টডাউন জোরেজোরে আওয়াজ করে করবে যাতে দরজার এপাশ থেকে আমিও শুনতে পাই।
-হ্যা ঠিক আছে করবো… রেডি…থ্রি টু ওয়ান জিরো স্টার্ট…10, 9, 8……….
[নাবিল সত্যিসত্যিই কানে ধরার দৃশ্যটা ভিডিও করে মোবাইলটা দরজার নিচ দিয়ে শায়লার দিয়ে গড়িয়ে দিলো। আর শায়লা ভিডিওটা ওপেন করে একহাতে মুখ চেপে হাসতে লাগলো।] -কি হলো? দেখা হলো? বিলিভ হয়েছে? এবার তো দরজাটা খোলো প্লিজজজ !
~নাহ হয়নি। কিচ্ছু হয়নি। তুমি একহাত দিয়ে কান ধরেছো কেন? আরেকহাত কই? এটাকে কানে ধরা বলে?…ইডিয়ট কোথাকার!
-আরে কি মুশকিল! দুইহাত দিয়ে কান ধরলে ভিডিও করবো ক্যামনে?
~অতশত বুঝিনা। হয়নি…তাই হয়নি।ওকে…এইবার তবে অন্যহাতের’টাও ভিডিও করে দেখাতে হবে। তাহলেই শাস্তি মাফ।
-উহ প্লিজ…সিন ক্রিয়েট করো নাতো। লোকজন দেখলে কি ভাববে? দরজাটা খোলো না… প্লিজ।
~ভাবলে ভাবুক।তাতে আমার বৈয়েই গেছে।
-আরে কি জ্বালায় পড়লাম। এখন কিন্তু মশায় কামড়াচ্ছে ভীষণ।
~ভালো হইছে। আরো বেশি করে কামড়াক। আগে বলো তুমি কি আরেকটা ভিডিও পাঠাবে। ইয়েস অর নো?
-আশপাশ দিয়ে মানুষজন যাওয়াআসা করছে। আর তুমি কি পাগলামো শুরু করলে বলো দেখি?
~আই জাস্ট ডিরেক্টলি ওয়ান্না হেয়ার…
YES or NO?
-NOOO….
~ওকে ঠিক আছে। তাইলে আজ সারারাত ওখানেই দাড়িয়ে থাকো।ওয়েট…আমি একটা মশার কয়েল আর দিয়াশলাই পাঠিয়ে দিচ্ছি। ধরিয়ে নিও ক্যামন।তাহলে আর মশায় কামড়াবে না। সারারাত আরামে দাড়িয়ে থাকতে পারবে।

[শায়লা দরজার নিচ দিয়ে আলগা একটা মশার কয়েল এবং একটা দিয়াশলাই বক্স নাবিলের দিকে গড়িয়ে দিলো। অতপর সে রাতে বেচারা নাবিল বুঝতে পেরেছিলো যে তার আর বাঁচার কোন পথ খোলা নাই। তাই উপায়ন্তর না পেয়ে শেষমেশ শায়লার আদুরে আবদার মেনে নিতে বাধ্য হয়েছিলো।]

একটা সম্পর্কে মাঝেমধ্যে এরকম একটুআধটু দুষ্টমিষ্ট অভিমান-খুনসুটি-বাদানুবাদ না হলে কি চলে? আসলে এগুলো সবই একটা ভালোবাসার উপাদান। এগুলো ছাড়া ভালোবাসা যেমন পানসে। আবার তেমনি এগুলোর আধিক্যও কোন কোন ভালোবাসার গুরুতর অন্তরায় হয়ে ওঠে। তাই দুইটাই থাকুক অল্পস্বল্প। আর প্রেম থাকুক অটুট।

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» রুর‌্যাল জার্নালিষ্ট ফাউন্ডেশন (আরজেএফ)’র আলফাডাঙ্গা শাখার দ্বিবার্ষিক কমিটি গঠন

» সমাহার সফট চালু করলো করপোরেট বাল্ক এসএমএস

» আরজেএফ কেন্দ্রীয় কমিটিতে আলফাডাঙ্গার কামরুল ইসলাম নির্বাচিত

» “মধুমতি পাড়ের লেখিয়ে গ্রুপ”

» Test

» জেনে নিন টনসিলের ব্যথা দূর করার সহজ সমাধান !!

» ডায়াবেটিস রোগীদের পায়ে ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায় !!

» ৪ অবস্থায় আদা ভুলেও খাবেন না !!

» বিয়ের পর মোটা হওয়া কিভাবে আটকাবেন?

» সুখী দাম্পত্যজীবনের মন্ত্র

» লিভার নষ্ট হওয়ার এই ১০টি কারণ কি আপনার মধ্যে আছে? আজই সচেতন হউন !!

» যেভাবে রসুন খেলে ৩ গুণ বেড়ে যায় পুরুষের শারীরিক সক্ষমতা !!

» ভাঙা সম্পর্কের রেশ কাটাতে

» হঠাৎ অস্থিরতা ও খারাপ লাগা বড় কোনো রোগের লক্ষণ?

» নিজেকে সব সময় ক্লান্ত মনে হয়?

Archive Calendar

ডিসেম্বর ২০১৭
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« নভেম্বর   জানুয়ারি »
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

সদস্য মণ্ডলী : –

উপদেষ্টা : ডা রফিকুল ইসলাম বিজলী
আইন উপদেষ্টা : এ্যড জামাল হোসেন মুন্না
সম্পাদক ও প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন

যোগাযোগ : –

সম্পাদকীয় কার্যালয় : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
09602111463,09602333111,01611354077
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।

রাত ৯:৪১, ,

“অভিমান”

“অভিমান”
————–
—মনিরুজ্জামান নাগর
“মধুমতি পাড়ের লেখিয়ে”
———————————————

-কি হলো? দরজাটা খোলো !
~নাহ খুলবো না।
-আরে প্রমিজ করলাম তো আর কোনদিন দেরি করে ফিরবো না।
~তোমার ওসব মনভোলানো কথায় আজ আমি পটছি না।
-আচ্ছা এইযে কানে ধরলাম। এবার তো খোলো।
~ভণ্ডামো রাখো। তুমি দরজার ওপাশে দাড়িয়ে সত্যিসত্যিই কানে ধরেছো কিনা সেটা আমি এপাশ থেকে কীভাবে বুঝবো?
-বিলিভ মি…সত্যিসত্যিই ধরেছি।
~আই ডোন্ট বিলিভ।
-আচ্ছা বাবা…আমি মোবাইলে ভিডিও করে দরজার নিচ দিয়ে পাঠাচ্ছি তুমি নিজেই দেখে নাও।
~ওকে…তাহলে শোনো, গুনেগুনে ঠিক দশবার ওঠবস করবে। আর কাউন্টডাউন জোরেজোরে আওয়াজ করে করবে যাতে দরজার এপাশ থেকে আমিও শুনতে পাই।
-হ্যা ঠিক আছে করবো… রেডি…থ্রি টু ওয়ান জিরো স্টার্ট…10, 9, 8……….
[নাবিল সত্যিসত্যিই কানে ধরার দৃশ্যটা ভিডিও করে মোবাইলটা দরজার নিচ দিয়ে শায়লার দিয়ে গড়িয়ে দিলো। আর শায়লা ভিডিওটা ওপেন করে একহাতে মুখ চেপে হাসতে লাগলো।] -কি হলো? দেখা হলো? বিলিভ হয়েছে? এবার তো দরজাটা খোলো প্লিজজজ !
~নাহ হয়নি। কিচ্ছু হয়নি। তুমি একহাত দিয়ে কান ধরেছো কেন? আরেকহাত কই? এটাকে কানে ধরা বলে?…ইডিয়ট কোথাকার!
-আরে কি মুশকিল! দুইহাত দিয়ে কান ধরলে ভিডিও করবো ক্যামনে?
~অতশত বুঝিনা। হয়নি…তাই হয়নি।ওকে…এইবার তবে অন্যহাতের’টাও ভিডিও করে দেখাতে হবে। তাহলেই শাস্তি মাফ।
-উহ প্লিজ…সিন ক্রিয়েট করো নাতো। লোকজন দেখলে কি ভাববে? দরজাটা খোলো না… প্লিজ।
~ভাবলে ভাবুক।তাতে আমার বৈয়েই গেছে।
-আরে কি জ্বালায় পড়লাম। এখন কিন্তু মশায় কামড়াচ্ছে ভীষণ।
~ভালো হইছে। আরো বেশি করে কামড়াক। আগে বলো তুমি কি আরেকটা ভিডিও পাঠাবে। ইয়েস অর নো?
-আশপাশ দিয়ে মানুষজন যাওয়াআসা করছে। আর তুমি কি পাগলামো শুরু করলে বলো দেখি?
~আই জাস্ট ডিরেক্টলি ওয়ান্না হেয়ার…
YES or NO?
-NOOO….
~ওকে ঠিক আছে। তাইলে আজ সারারাত ওখানেই দাড়িয়ে থাকো।ওয়েট…আমি একটা মশার কয়েল আর দিয়াশলাই পাঠিয়ে দিচ্ছি। ধরিয়ে নিও ক্যামন।তাহলে আর মশায় কামড়াবে না। সারারাত আরামে দাড়িয়ে থাকতে পারবে।

[শায়লা দরজার নিচ দিয়ে আলগা একটা মশার কয়েল এবং একটা দিয়াশলাই বক্স নাবিলের দিকে গড়িয়ে দিলো। অতপর সে রাতে বেচারা নাবিল বুঝতে পেরেছিলো যে তার আর বাঁচার কোন পথ খোলা নাই। তাই উপায়ন্তর না পেয়ে শেষমেশ শায়লার আদুরে আবদার মেনে নিতে বাধ্য হয়েছিলো।]

একটা সম্পর্কে মাঝেমধ্যে এরকম একটুআধটু দুষ্টমিষ্ট অভিমান-খুনসুটি-বাদানুবাদ না হলে কি চলে? আসলে এগুলো সবই একটা ভালোবাসার উপাদান। এগুলো ছাড়া ভালোবাসা যেমন পানসে। আবার তেমনি এগুলোর আধিক্যও কোন কোন ভালোবাসার গুরুতর অন্তরায় হয়ে ওঠে। তাই দুইটাই থাকুক অল্পস্বল্প। আর প্রেম থাকুক অটুট।

Comments

comments

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সদস্য মণ্ডলী : –

উপদেষ্টা : ডা রফিকুল ইসলাম বিজলী
আইন উপদেষ্টা : এ্যড জামাল হোসেন মুন্না
সম্পাদক ও প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন

যোগাযোগ : –

সম্পাদকীয় কার্যালয় : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
09602111463,09602333111,01611354077
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।