দুপুর ১:০০ | বুধবার | ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

হলি আর্টিজান, শোলাকিয়া থেকে বের হতে পারিনি : কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘হলি আর্টিজান, শোলাকিয়া, কল্যাণপুর, আশকোনা থেকে বেরোতে পারিনি। আজও আশকোনায় একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি করেছে। আজকেরটা আরো ভয়াবহ।’

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে আজ শুক্রবার বিকেলে বাঙালি সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এসবের মূল কারণ সাম্প্রদায়িক অপশক্তি। এ অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হবে। পরাজিত করতে হবে এবং বিজয়ী হতে হবে। জাতির জনকের জন্মদিবসে এই হোক আমাদের প্রতিজ্ঞা। এরা কিছুদিন হামলা চালিয়ে আড়ালে চলে যায়। আবার আসে, আবার হামলা করে। আজকে আবার আত্মঘাতী হামলা করার উদ্দেশে ফিরে এসেছে।’

বিএনপিকে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক অপশক্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক আখ্যা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখানে যেসব হামলা হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থানে তথা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক অপশক্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বিএনপি। এ কারণে সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সব অভিযানে তারা অন্তর্জ্বালায় ভুগছে। তার পরও বলি, যথাসময়ে নির্বাচন হবে, নেতিবাচক রাজনীতি পরিহার করে ইতিবাচক চিন্তা নিয়ে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন। নির্বাচনের অধিকার আপনাদেরও আছে।’

এ সময় টিভি ও বেতারের শিল্পীদের সম্মানী নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বেতার, টেলিভিশনে কিংবা নাটকে অভিনয়, আবৃত্তি করে তারা যা পায় তা দিয়ে রিকশা ভাড়াই হয় না। নামমাত্র সম্মানী। এই সম্মানী তাদের সম্মানকে তিরস্কার করে। আমি মনে করি, এই মানসিকতা থেকে আমাদের বেরোতে হবে।’

‘তবে কিছু কিছু কর্মী ক্ষমতার দাপট দেখায়। তারা টিভিতে দাপট দেখায়, বেতারে দেখায়, এই দাপট দেখানো বন্ধ করতে হবে। সংস্কৃতিচর্চার নামে দোকান বন্ধ করতে হবে। ব্যাঙের ছাতার মতো দোকান। এই দোকান বন্ধ করতে হবে। এ রকম আমাদের দলের নাম নিয়েও করা হচ্ছে। আজ টুঙ্গিপাড়া থেকে ফেরার পথে দেখলাম আওয়ামী প্রচার লীগ। আওয়ামী লীগে এত বড় একটা প্রচার সেল থাকার পর এসবের দরকার আছে বলে আমি মনে করি না। আওয়ামী তরুণ লীগ, প্রজন্ম লীগ, অভিভাবক লীগ এ রকম যে কত দোকান আছে তার হিসেব নেই’, যোগ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

সংগঠনের সভাপতি চয়ন ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হারুন-অর-রশীদ, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মেহেরীন জাহান কবিতা। এ ছাড়া ছিলেন আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আজম বাসার।

আলোচনা শেষে সংগীতানুষ্ঠানে অংশ নেন দেশের প্রতিশ্রুতিশীল সংগীতশিল্পীরা।

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জীবন ও সুখ

» মন্চায়িত হয়েগেল উৎস নাট্যদলের নাটক” বর্ণমালার মিছিল”

» পবিত্র মাহে রমজানের গান,,,

» “মন্চায়িত হয়েগেল উৎস নাট্যদলের নাটক “বর্ণমালার মিছিল”

» আলফাডাঙ্গায় নতুন পৌরসভা নির্বাচনে আ.লীগের প্রার্থী ৯ , সতন্ত্র ১, বিএনপি ১

» কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা

» বার্তাকন্ঠের সাহিত্য সম্পাদক হলেন লিয়াকত হোসেন লিটন

» কাব্য জলসা “নৈবেদ্য” –মাহফুজুল আলম মাহফুজ

» সহোদর -ডাঃ সুকুমার কুন্ডু

» মেয়েটি আর জোৎস্না দেখেনা – লেখিকাঃ ঝর্ণা দে (ঝুনু)

» না দেখা আভাসে — মাহফুজুল আলম মাহফুজ

» পরিবর্তন – এম,এম,লিয়াকত হোসেন ( লিটন )

» শিল্পকলায় বর্ণমালার মিছিলের অষ্টম মঞ্চায়ন

» বেরসিক পাঠক ও সিঙ্গাড়ার গল্প

» উৎস নাট্যদলের উপদেষ্টা হলেন ডাঃ সুকুমার কুন্ডু

সদস্য মণ্ডলী : –

উপদেষ্টা : ডা রফিকুল ইসলাম বিজলী
আইন উপদেষ্টা : এ্যড জামাল হোসেন মুন্না
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুজাহিদুল ইসলাম নাইম
সম্পাদক ও প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন

যোগাযোগ : –

সম্পাদকীয় কার্যালয় : ২৩/৩, তোপখানা রোড,
৪র্থ তালা (পাক্ষিক অনিয়ম এর পাশে ঢাকা - ১০০০
কর্পোরেট অফিস : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
09602111463, 01911717599, 01611354077
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।

দুপুর ১:০০, ,

হলি আর্টিজান, শোলাকিয়া থেকে বের হতে পারিনি : কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘হলি আর্টিজান, শোলাকিয়া, কল্যাণপুর, আশকোনা থেকে বেরোতে পারিনি। আজও আশকোনায় একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি করেছে। আজকেরটা আরো ভয়াবহ।’

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে আজ শুক্রবার বিকেলে বাঙালি সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এসবের মূল কারণ সাম্প্রদায়িক অপশক্তি। এ অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হবে। পরাজিত করতে হবে এবং বিজয়ী হতে হবে। জাতির জনকের জন্মদিবসে এই হোক আমাদের প্রতিজ্ঞা। এরা কিছুদিন হামলা চালিয়ে আড়ালে চলে যায়। আবার আসে, আবার হামলা করে। আজকে আবার আত্মঘাতী হামলা করার উদ্দেশে ফিরে এসেছে।’

বিএনপিকে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক অপশক্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক আখ্যা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখানে যেসব হামলা হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থানে তথা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক অপশক্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বিএনপি। এ কারণে সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সব অভিযানে তারা অন্তর্জ্বালায় ভুগছে। তার পরও বলি, যথাসময়ে নির্বাচন হবে, নেতিবাচক রাজনীতি পরিহার করে ইতিবাচক চিন্তা নিয়ে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন। নির্বাচনের অধিকার আপনাদেরও আছে।’

এ সময় টিভি ও বেতারের শিল্পীদের সম্মানী নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বেতার, টেলিভিশনে কিংবা নাটকে অভিনয়, আবৃত্তি করে তারা যা পায় তা দিয়ে রিকশা ভাড়াই হয় না। নামমাত্র সম্মানী। এই সম্মানী তাদের সম্মানকে তিরস্কার করে। আমি মনে করি, এই মানসিকতা থেকে আমাদের বেরোতে হবে।’

‘তবে কিছু কিছু কর্মী ক্ষমতার দাপট দেখায়। তারা টিভিতে দাপট দেখায়, বেতারে দেখায়, এই দাপট দেখানো বন্ধ করতে হবে। সংস্কৃতিচর্চার নামে দোকান বন্ধ করতে হবে। ব্যাঙের ছাতার মতো দোকান। এই দোকান বন্ধ করতে হবে। এ রকম আমাদের দলের নাম নিয়েও করা হচ্ছে। আজ টুঙ্গিপাড়া থেকে ফেরার পথে দেখলাম আওয়ামী প্রচার লীগ। আওয়ামী লীগে এত বড় একটা প্রচার সেল থাকার পর এসবের দরকার আছে বলে আমি মনে করি না। আওয়ামী তরুণ লীগ, প্রজন্ম লীগ, অভিভাবক লীগ এ রকম যে কত দোকান আছে তার হিসেব নেই’, যোগ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

সংগঠনের সভাপতি চয়ন ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হারুন-অর-রশীদ, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মেহেরীন জাহান কবিতা। এ ছাড়া ছিলেন আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আজম বাসার।

আলোচনা শেষে সংগীতানুষ্ঠানে অংশ নেন দেশের প্রতিশ্রুতিশীল সংগীতশিল্পীরা।

Comments

comments

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সদস্য মণ্ডলী : –

উপদেষ্টা : ডা রফিকুল ইসলাম বিজলী
আইন উপদেষ্টা : এ্যড জামাল হোসেন মুন্না
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুজাহিদুল ইসলাম নাইম
সম্পাদক ও প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন

যোগাযোগ : –

সম্পাদকীয় কার্যালয় : ২৩/৩, তোপখানা রোড,
৪র্থ তালা (পাক্ষিক অনিয়ম এর পাশে ঢাকা - ১০০০
কর্পোরেট অফিস : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
09602111463, 01911717599, 01611354077
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।